রোববার   ২০ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২০ সফর ১৪৪১

৯৯

ভারতে খুন বাংলাদেশি যুবকের মরদেহ ফেরত দিলো বিএসএফ

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩১ জানুয়ারি ২০১৯  

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বাড়াদী সীমান্তে ভারতের অভ্যন্তরে খুন হওয়া বাংলাদেশি যুবক ওমিদুল ইসলামের মরদেহ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ।  ঘটনার চারদিন পর বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সীমান্তের ৮১ নম্বর মেইন পিলারের কাছে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠকের মধ্য দিয়ে মরদেহটি ফেরত দেয়া হয়। 

বৈঠকে বিজিবির পক্ষে দর্শনা ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মতিয়ার রহমান, বাড়াদী ক্যাম্পের কমান্ডার মুরাদুল ইসলামসহ ১৫ জন এবং ভারতের বিএসএফের পক্ষে বিজয়পুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার এসি সুরেন্দ্র শিংসহ ১৫ জন উপস্থিত ছিলেন। 


জানা যায়, গত রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার নাস্তিপুর গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে  ওমিদুল হককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ভারতের অভ্যন্তরে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। সোমবার সকালে কৃষকরা সীমান্তবর্তী মাঠে কৃষি কাজ করতে গেলে ভারতের অভ্যন্তরে ওমিদুল হকের মরদেহ দেখে বাড়াদী বিজিবি ক্যাম্প ও দামুড়হুদা থানা পুলিশে খবর দেয়। এরপর বিজিবি মরদেহ ফেরত চেয়ে বিজয়পুর বিএসএফ ক্যাম্পে চিঠি দেয়। খবর পেয়ে বিএসএফ সদস্যরা তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কৃষ্ণনগর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এর চারদিন পর বৃহস্পতিবার বিএসএফ ওমিদুল হকের মরদেহ বিজিবির কাছে ফেরত দেয়। এরপর বিজিবি মরদেহটি দামুড়হুদা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। পরে পুলিশ ওমিদুল হকের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। 

দামুড়হুদা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস বলেন, হত্যাকাণ্ডের কারণ এখনো জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে মাদক ভাগাভাগি নিয়ে নিজেদের মধ্যে কোন্দলের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে। ঘটনাটি তদন্তপূর্বক দোষীদের খুঁজে বের করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিহতের মরদেহ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আজকের নড়াইল
আজকের নড়াইল
এই বিভাগের আরো খবর