বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ১৯ মুহররম ১৪৪১

২৮২

আভোকাডো তেলের ব্যবহার

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩০ নভেম্বর ২০১৮  

আভোকাডো ফলটি খুবই স্বাস্থ্যকর। জানেন কি? আভাকোডা অয়েলও স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি। এ তেলটি অনলাইনে বা যেকোনো সুপার শপে কিনতে পাওয়া যায়। এ তেলটি আমাদের স্বাস্থ্য ও রূপচর্চার দিক থেকে কতটা উপকারি তা জেনে নিন-
আভোকাডো তেল চুলের জন্য খুবই উপকারি। 

এতে ফ্যাট, প্রোটিন, ভিটামিন ও খনিজ রয়েছে। যা চুল ঘন করতে সাহায্য করে থাকে। আর এটি চুল বৃদ্ধি করতেও খুবই উপকারি। চুলকে ভালো রাখতে আভোকাডো তেল এর সঙ্গে জলপাইয়ের তেল মিশিয়ে চুলে ম্যাসাজ করতে পারেন। তবে তা চুল পড়া কমাতে ও চুল বৃদ্ধিতে খুবই ভালো কাজ করে। এ তেল রুপচর্চার ক্ষেত্রেও খুবই ভালো কাজ করে থাকে। 

কারণ এতে রয়েছে ভিটামিন এ, ই ও পটাসিয়াম। আভোকাডো তেল ঠোঁট, মুখ ও পায়ের ত্বকে খুবই ভালো কাজ করে থাকে। তাই ত্বক ভালো রাখতে এ তেল দিয়ে মুখে ও পায়ের ত্বকে ম্যাসাজ করতে পারেন।

কোলেস্ট্ররেলের মাত্রা কমানোর জন্য আভোকাডো তেল খুবই উপকারি। কারণ এতে রয়েছে প্রাকৃতিক বিটা সিট ট্রল। যা দেহের কোলেট্রলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে থাকে। এক্ষেত্রে আপনি আভোকাডো রান্নায়ও ব্যবহার করতে পারেন। শুধু তাই নয়, উচ্চ রক্তচাপ দূর করতে বা প্রতিরোধ করতে আভোকাডো তেলের জুড়ি নেই। এতে রয়েছে গ্লুটানিয়াম, পটাসিয়াম ও ফলিক এসিড।

আভাকোডা তেল বিভিন্ন রোগ থেকে বাঁচাতে ও দেহের মেদ ঝরাতে সাহায্য করে। এমনকি বিভিন্ন প্রকার ক্যান্সারের হাত থেকেও রক্ষা করতে পারে আভোকাডো তেল। এ তেল ক্যান্সারের কোষ বৃদ্ধি প্রতিরোধ করতে পারে। তাই আভোকাডো তেল খেলে আপনি বিভিন্ন রকম ক্যান্সারের হাত থেকে রক্ষা পেতে পারেন। তাই শারীরিক বিভিন্ন উপকারিতা পেতে এবং বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করতেও আভোকাডো তেল এর কোন জুড়ি নেই।

আজকের নড়াইল
আজকের নড়াইল